শ্রেণিবিন্যাস: ফযীলত ও শিষ্ঠাচার .

عن خولة الأنصارية -رضي الله عنها- قالت: قال رسول الله -صلى الله عليه وسلم-: «إن رجالاً يَتَخَوَّضُون في مال الله بغير حق, فلهم النار يوم القيامة».
[صحيح.] - [رواه البخاري.]
المزيــد ...

খাওলাহ বিনতে আমের আল-আনসারীয়্যাহ রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি, “কিছু লোক আল্লাহর মাল নাহক ব্যয়-বন্টন করবে। সুতরাং তাদের জন্য কিয়ামতের দিন জাহান্নামের আগুন রয়েছে।”
সহীহ - এটি বুখারী বর্ণনা করেছেন।

ব্যাখ্যা

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কতক লোক যারা মুসলিমদের সম্পদে অন্যায়ভাবে খরচ করে তাদের সম্পর্কে সংবাদ দিয়ে বলেন যে, তারা তা অন্যায়ভাবে গ্রহণ করে থাকে। এর মধ্যে রয়েছে ইয়াতীমের মাল ভক্ষণ করা, হকদার ছাড়া অন্যায়ভাবে ওয়াকফের সম্পদ ভক্ষণ করা, আমানতকে অস্বীকার করা এবং অন্যায়ভাবে ও অনুমতি ছাড়া সর্ব সাধারণের মাল গ্রহণ করা। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জানিয়ে দেন যে, কিয়ামতের দিন এ কারণে তাদের শাস্তি হলো জাহান্নাম।

অনুবাদ: ইংরেজি ফরাসি স্পানিস তার্কিশ উর্দু ইন্দোনেশিয়ান বসনিয়ান রুশিয়ান চাইনিজ ফার্সি তাগালোগ ইন্ডিয়ান সিংহলী উইঘুর কুর্দি পর্তুগীজ মালয়ালাম তেলেগু সুওয়াহিলি তামিল
অনুবাদ প্রদর্শন
1: হালাল পন্থা ছাড়া অন্য কোনো উপায়ে মাল উপার্জন করা মানুষের ওপর হারাম। কারণ, হারাম উপায়ে মাল উপার্জন করা তাতে ডুবে যাওয়ার নামান্তর এবং অন্যায়ভাবে তসরুফ করা।
2: মুসলিম ও তাদের কর্মকর্তাদের হাতের সম্পদ আল্লাহরই সম্পদ। বৈধ পন্থায় ব্যয় করার জন্য আল্লাহ তাদেরকে তার ওপর প্রতিনিধি বানিয়েছেন। সুতরাং অন্যায়ভাবে তাতে খরচ করা হারাম। এটি দায়িত্বশীল এবং অন্যান্য সব মুসলিমের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।
Donate