عن عثمان بن عفان -رضي الله عنه- عن النبي -صلى الله عليه وسلم- قال: «خَيرُكُم من تعلَّمَ القرآنَ وعلَّمَهُ».
[صحيح.] - [رواه البخاري.]
المزيــد ...

উসমান ইবন আফ্ফান রাদিয়াল্লাহু আনহু সূত্রে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে বর্ণিত, তিনি বলেছেন, “তোমাদের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যক্তি সেই, যে নিজে কুরআন শিখে ও অপরকে শিক্ষা দেয়।”
সহীহ - এটি বুখারী বর্ণনা করেছেন।

ব্যাখ্যা

“তোমাদের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যক্তি সেই, যে নিজে কুরআন শিখে ও অপরকে শিক্ষা দেয়।” এ সম্বোধনটি উম্মাতের জন্য ব্যাপক। সুতরাং উত্তম ব্যক্তি হলো, যে ব্যক্তি এ দুটি গুণ কুরআন শেখা এবং কুরআন শেখানো; অপর থেকে শেখা এবং অপরকে শেখানো উভয়টিকে একত্র করবে। কারণ, কুরআনের ইলম হলো সবচেয়ে সম্মানি ইলম। শেখা এবং শিখানো শব্দ এবং অর্থ উভয়টিকে শামিল করে। সুতরাং যে ব্যক্তি শুধু কুরআন হিফয করল তারপর মানুষকে তিলাওয়াত শেখাতে লাগল এবং তাদের হিফয করাতে লাগলো সেও শিক্ষা দেওয়ার মধ্যে শামিল থাকবে। অনুরূপভাবে যে শুধু অর্থ শিখে সেও শিক্ষা গ্রহণকারীদের অন্তর্ভুক্ত। আর দ্বিতীয় প্রকার হলো, অর্থ শিক্ষা দেওয়া। যেমন, তাফসীর শেখানো। কোন ব্যক্তি মানুষের পাশে বসে তাদের তাফসীর শেখায় যে, কিভাবে কুরআনের তাফসীর করতে হয়, এভাবে যখন কোন মানুষ কাউকে কীভাবে তাফসীর করতে হয় তা শেখায় এবং এ বিষয়ে নিয়ম কানুন তাকে জানিয়ে দিল, এটি অবশ্যই কুরআন শিক্ষা দেওয়ার শামিল হবে।

অনুবাদ: ইংরেজি ফরাসি স্পানিস তার্কিশ উর্দু ইন্দোনেশিয়ান বসনিয়ান রুশিয়ান চাইনিজ ফার্সি তাগালোগ ইন্ডিয়ান উইঘুর কুর্দি হাউসা
অনুবাদ প্রদর্শন
1: কুরআনুল কারীম ও তাজবীদ শেখার এবং শিক্ষা দেয়ার ফযীলত।
2: তাতে যে সব আহকাম, আদাব ও আখলাক রয়েছে তদনুযায়ী আমল করার ফযীলত।
3: আলেমের জন্য উচিত হলো ইলম শেখার পর তা প্রসার করা।
4: যে ব্যক্তি কুরআন থেকে কিছু শেখে তার সম্মান এবং শেখার কারণে তার মর্যাদা বৃদ্ধি।