عن عليٍّ رضي الله عنه قال: رأيتُ رسولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم أَخَذَ حَرِيرًا، فجعله في يمينه، وذَهَبًا فجعله في شماله، ثم قال: «إِنَّ هَذَيْنِ حرامٌ على ذُكُورِ أُمَّتِي». عن أبي موسى الأشعري رضي الله عنه : أَنَّ رسولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم قال: «حُرِّمَ لِباسُ الحَرِيرِ والذَّهَبِ على ذُكُورِ أُمَّتِي، وأُحِلَّ لإِنَاثِهِمْ».
[صحيحان] - [حديث علي رضي الله عنه: رواه أبو داود والنسائي وابن ماجه وأحمد. حديث أبي موسى رضي الله عنه: رواه الترمذي والنسائي وأحمد]
المزيــد ...

আলী রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে দেখেছি, তিনি ডান হাতে রেশম ধরলেন এবং বাম হাতে স্বর্ণ, অতঃপর বললেন, ‘‘আমার উম্মতের পুরুষদের জন্য এ দু’টি বস্তু হারাম।’ আবূ মূসা ‘আশআরী রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, “রেশমের পোশাক ও স্বর্ণ আমার উম্মতের পুরুষদের জন্য হারাম করা হয়েছে, আর তাদের নারীদের জন্য করা হয়েছে হালাল।”
উভয় বর্ণনাসহ সহীহ - এটি ইবন মাজাহ বর্ণনা করেছেন।

ব্যাখ্যা

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম রেশম নিয়ে ডান হাতে রাখলেন এবং স্বর্ণ নিয়ে বাম হাতে রাখলেন, অতঃপর বললেন, এই দু’টি বস্তু –রেশম ও স্বর্ণ- আমার উম্মতের পুরুষদের জন্য হারাম। সুতরাং এ উম্মতের পুরুষদের জন্য রেশম ও স্বর্ণ পরিধান করা হারাম। তবে চুলকানি ও চর্ম রোগের জন্য রেশমি পড়া ছাড়া গত্যন্তর না থাকলে তা ব্যতিক্রম; এবং যেমন স্বর্ণের নাক। আর এ দু’টি বস্তু মহিলাদের জন্য হালাল। সুতরাং তারা এ দু’টি থেকে যা ইচ্ছা পরিধান করতে পারবে অপচয়ের সীমায় পৌঁছা পর্যন্ত। কেননা অপচয় জায়েয নয় –যা আল্লাহ তা‘আলার বাণী থেকে বুঝা যায়: “এবং তোমরা অপচয় করো না। নিশ্চয় তিনি অপচয়কারীকে পছন্দ করেন না।” [সূরা আল-আ‘রাফ, আয়াত: ৩১]

অনুবাদ: ইংরেজি ফরাসি স্পানিস তার্কিশ উর্দু ইন্দোনেশিয়ান বসনিয়ান রুশিয়ান চাইনিজ ফার্সি তাগালোগ ইন্ডিয়ান উইঘুর কুর্দি হাউসা
অনুবাদ প্রদর্শন
আরো