عن عائشة أم المؤمنين -رضي الله عنها- قالت: سمعت رسول الله -صلى الله عليه وسلم- يقول: «يُحْشَرُ الناس يوم القيامة حفاة عراة غُرْلًا، قلت: يا رسول الله الرجال والنساء جميعا ينظر بعضهم إلى بعض؟ قال: يا عائشة الأمر أشد من أن يهمهم ذلك». وفي رواية : «الأمر أَهَمُّ من أن ينظر بعضهم إلى بعض».
[صحيح.] - [متفق عليه.]
المزيــد ...

উম্মুল মুমিনীন আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে মরফু হিসেবে বর্ণিত “কিয়ামতের দিন নগ্নপদ, উলঙ্গ এবং খাতনাবিহীন অবস্থায় সমস্ত মানুষকে হাশরের মাঠে একত্র করা হবে। আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেন, আমি বললাম: হে আল্লাহর রাসূল! নারী-পুরুষ সবাইকে উলঙ্গ অবস্থায় উপস্থিত করা হবে? তাহলে একজন অন্যজনের লজ্জাস্থানের দিকে তাকিয়ে থাকবে। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, হে আয়েশা! ব্যাপারটি একজন অন্যজনের দিকে তাকিয়ে থাকার চেয়ে অনেক ভয়াবহ হবে। অপর বর্ণনায় এসেছে : অবস্থা কেউ কারো প্রতি দৃষ্টিপাত করার চেয়ে অধিক ভয়াবহ।

ব্যাখ্যা

আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বলেন, আমি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি: কিয়ামতের দিন আল্লাহ মানুষকে এমন একত্রিত করবেন, যে অবস্থায় তাদের জুতা থাকবে না, শরীরে কাপড় থাকবে না এবং তারা হবে খাতনাবিহীন। তারা কবর থেকে ঐ দিনের মতো বের হবে যেদিন তাদের মা তাদেরকে ভূমিষ্ট করেছিল। আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বললেন, হে আল্লাহর রাসূল! নারী-পুরুষ সকলকেই উলঙ্গ অবস্থায় থাকবে? তাহলে তো একজন অন্যজনের দিকে তাকিয়ে থাকবে। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, ব্যাপারটি এর চেয়ে অধিক ভয়াবহ অথবা কেউ কারো প্রতি দৃষ্টিপাত করার চেয়েও অধিক ভয়াবহ।

অনুবাদ: ইংরেজি ফরাসি স্প্যানিশ তার্কিশ উর্দু ইন্দোনেশিয়ান বসনিয়ান রুশিয়ান চাইনিজ
অনুবাদ প্রদর্শন