عن أُمِّ قَيْسِ بِنْتِ مِحْصَنٍ الأَسَدِيَّة -رضي الله عنها- «أنَّها أتَت بابن لها صغير لم يأكل الطعام إلى رسول الله -صلى الله عليه وسلم- فأجلسه في حِجْرِه, فبال على ثوبه, فدعا بماء فَنَضَحَه على ثوبه, ولم يَغْسِله». عن عَائِشَةَ أُمِّ الْمُؤْمِنِين -رضي الله عنها- «أنَّ النَّبي -صلى الله عليه وسلم- أُتِيَ بصبي, فبال على ثوبه, فدعا بماء, فأَتبَعَه إِيَّاه». وفي رواية: «فَأَتْبَعَه بوله, ولم يَغسِله» .
[صحيح.] - [حديث أم قيس الأسدية -رضي الله عنها-: متفق عليه. حديث عائشة -رضي الله عنها-: الرواية الأولى متفق عليها، الرواية الثانية: رواها مسلم.]
المزيــد ...

উম্মু কায়স বিনত মিহসান আল-আসাদিয়্যাহ রাদিয়াল্লাহু আনহা হতে বর্ণিত যে, তিনি তাঁর এমন একটি ছোট ছেলেকে নিয়ে আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম -এর নিকট এলেন যে তখনো খাবার খেতে শিখেনি। আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম শিশুটিকে তাঁর কোলে বসালেন। তখন সে তাঁর কাপড়ে পেশাব করে দিল। তখন তিনি পানি আনতে বললেন এবং তার কাপড়ের উপর তা ছিটিয়ে দিলেন, তিনি তা ধৌত করলেন না। উম্মুল মু’মিনীন মা ‘আয়িশাহ রাদিয়াল্লাহু আনহা হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম -এর নিকট একটি ছেলে শিশুকে আনা হল। শিশুটি তাঁর কাপড়ে পেশাব করে দিল। তিনি পানি আনালেন এবং এর উপর ঢেলে দিলেন। অপর বর্ণনায় বর্ণিত: “এর উপর ঢেলে দিলেন এবং তা ধৌত করলেন না”।

ব্যাখ্যা

সাহাবীগণ তাদের বাচ্চাদের নিয়ে রাসূলের নিকট বরকত ও দো‘আর জন্য আসতেন। রাসূলুল্লাহ তার উত্তম আখলাক ও দয়ার কারণে তাদের হাসিমুখে বরণ করতেন। উম্মে কাইস নামে একজন মহিলা সাহাবী তার একজন ছোট বাচ্চা নিয়ে যে শুধু দুধ পান করে, দুধ ছাড়া অন্য কিছু খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করার বয়সে পৌঁছেনি, রাসূলের নিকট আসেন। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম স্বীয় অনুগ্রহে তাকে নিজ কোলে বসালেন। বাচ্চাটি রাসূলের কাপড়ে পেশাব করে দিলে তিনি পানি আনতে বললেন। কাপড়ের যে জায়গায় পেশাব লাগলো তার উপর তিনি পানি ছিটিয়ে দিলেন। তা পুরোপুরি ধুইলেন না।

অনুবাদ: ইংরেজি ফরাসি স্প্যানিশ তার্কিশ উর্দু ইন্দোনেশিয়ান বসনিয়ান রুশিয়ান চাইনিজ
অনুবাদ প্রদর্শন